বিজ্ঞাপন

হাতিয়ার ইউএনও মো. ইমরান হোসেন আজ সন্ধ্যায় মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, দ্বিতীয় দফায় আসা ১ হাজার ৮০৪ জন রোহিঙ্গার মধ্যে পুরুষ রয়েছে ৪৩৩ জন, নারী ৫২৩ জন ও শিশু ৮৪৮ জন। ভাসানচরে আনার পর নিয়ম অনুযায়ী প্রত্যেকের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে।

স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, এর আগে গতকাল সোমবার কক্সবাজারের উখিয়া ক্যাম্প থেকে ভাসানচরে যেতে আগ্রহী রোহিঙ্গাদের নিয়ে ৩৭টি বাস চট্টগ্রামের উদ্দেশে রওনা হয়। তাঁদের নিয়ে উখিয়া ডিগ্রি কলেজের মাঠ থেকে বেলা সাড়ে ১১টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ৩০টির বেশি বাস চট্টগ্রামের উদ্দেশে ছেড়ে যায়। চট্টগ্রাম পৌঁছানোর পর রোহিঙ্গাদের বিএফ শাহীন কলেজের মাঠে রাখা হয়। সেখান থেকে মঙ্গলবার সকালে রোহিঙ্গারা নৌবাহিনীর জাহাজযোগে ভাসানচরের উদ্দেশে রওনা হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন