বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, ১১ ডিসেম্বর হলের নোটিশ বোর্ডে বিবাহিত ছাত্রীদের হল ছেড়ে দেওয়ার নোটিশটি দিয়েছিলেন প্রাধ্যক্ষ। এতে উল্লেখ তিনি করেছেন, ‘হলের নিয়ম অনুযায়ী বিবাহিত ছাত্রীদের হলে থেকে অধ্যয়নের সুযোগ নেই। এ অবস্থায় আগামী ৩০ জানুয়ারির মধ্যে বিবাহিত ছাত্রীদের সিট ছেড়ে দেওয়ার নোটিশ দেওয়া হলো।’ কোনো ছাত্রী বিবাহিত হলে অবিলম্বে হল কর্তৃপক্ষকে জানাতে বলা হয়েছে। বিষয়টি না জানালে নিয়ম ভঙ্গের কারণে জরিমানাসহ সিট বাতিল করা হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়।

কর্তৃপক্ষের এই নোটিশে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। বিষয়টি বিবেচনা করে গতকাল সন্ধ্যায় পুনরায় হলের সিট ছেড়ে দেওয়ার নোটিশ স্থগিত করে কর্তৃপক্ষ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভারপ্রাপ্ত) এ আর এম সোলায়মান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুযায়ী বিবাহিত ছাত্রীদের আবাসিক হলে থাকার বিষয়ে বিধিনিষেধ রয়েছে। কিন্তু সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে এ আইন আর ব্যবহৃত হয় না। সেই পরিপ্রেক্ষিতে ১১ ডিসেম্বর বিবাহিতদের হোস্টেলে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছিল। বিষয়টি নিয়ে ছাত্রীদের মধ্যে প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। এ কারণে বিশ্ববিদ্যালয় হল ছাড়ার নোটিশটি স্থগিত করেছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন