বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পুলিশ জানায়, ৪ অক্টোবর গভীর রাতে গাইবান্ধা গণপূর্ত বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী মো. শাহিদুজ্জামানের গাইবান্ধা শহরের ভিএইড রোডের সরকারি বাসায় তিনজন মুখোশধারী কয়েকটি ঢিল ছোড়ে। ঢিলের শব্দ শুনে তিনি বাইরে বের হয়ে দেখেন, তিনজন মুখোশধারী ব্যক্তি দাঁড়িয়ে আছে। এ সময় তারা প্রকৌশলী শাহিদুজ্জামানকে দেখে গালিগালাজ করতে থাকে এবং হত্যার হুমকি দেয়। পরে ‘তুই গাইবান্ধা ছাড়’ বলেই মুখোশধারীরা সটকে পড়ে।

সদর থানায় দায়ের করা অভিযোগে প্রকৌশলী শাহিদুজ্জামান উল্লেখ করেন, স্থানীয়ভাবে তাঁর কোনো শক্র নেই। কয়েক দিন আগে প্রায় ৯০ লাখ টাকার ভুয়া প্রকল্পের বিল ও বিভিন্ন প্রকল্পের প্রাক্কলনে তাঁর কাছে সই চান নির্বাহী প্রকৌশলী আবিল আয়াম। কিন্তু সই না দেওয়ায় নির্বাহী প্রকৌশলীর সঙ্গে তাঁর কথা–কাটাকাটি হয়। এ নিয়ে নির্বাহী প্রকৌশলী ক্ষুব্ধ হয়ে এই ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে তিনি ধারণা করছেন।

অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গাইবান্ধা সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আবদুর রউফ। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, বাসায় ঢিল ছোড়া ও হুমকির বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। বিল নিয়ে যে অভিযোগ আনা হয়েছে, সেটা তাঁদের অভ্যন্তরীণ ব্যাপার।

জানতে চাইলে গাইবান্ধা গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আবিল আয়াম অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি আজ রাত আটটায় মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, দাপ্তরিক কিছু বিষয় নিয়ে উপবিভাগীয় প্রকৌশলীর সঙ্গে তাঁর ভুল–বোঝাবুঝি হয়েছে। ঘটনাটি মীমাংসার চেষ্টা চলছে।

এ প্রসঙ্গে উপবিভাগীয় প্রকৌশলী মো. শাহিদুজ্জামানের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। কিন্তু তিনি ফোন ধরেননি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন