বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গতকাল সকালে লাউদিয়ায় দেখা গেছে, আবাসনের ১ নম্বর ঘরের ডান পাশের একটি খুঁটি ভেঙে পড়ে আছে। ভাঙা খুঁটির জায়গায় বাঁশের খুঁটি দেওয়া হয়েছে।

ঘরের বাসিন্দা ফাতেমা খাতুন জানান, শুক্রবার রাত ১০টার মধ্যে তাঁরা ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। একপর্যায়ে হঠাৎ ঘরের সামনে জোরে শব্দ হয়। ঘুম ভেঙে যায় তাঁদের। এরপর ঘর থেকে বের হয়ে দেখেন, ঘরের সামনের ডান পাশের খুঁটিটি ভেঙে পড়ে আছে। ফাতেমা খাতুন বলেন, খুঁটি ভেঙে পড়ার পর থেকে তাঁরা ভয়ে আছেন। কারণ, অন্য খুঁটিগুলো ভেঙে পড়ার আশঙ্কা করছেন তাঁরা।

আশ্রয়ণ প্রকল্পে বসবাসকারী কয়েকজন অভিযোগ করেন, তাঁদের বাড়িতে যাওয়ার রাস্তাটিও ব্যবহারের অনুপযোগী। তা ছাড়া নিম্নমানের উপকরণ দিয়ে নির্মাণ করা হয়েছে ঘরগুলো। এ কারণে কয়েক মাসের মধ্যেই ভেঙে পড়েছে।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এস এম শাহীন বলেন, ঘটনা শোনার পরই তিনি ওই আবাসনে যান। সেখানে গিয়ে যে অবস্থা দেখেছেন, তাতে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন, এটি একটি ষড়যন্ত্র। কেউ প্রকল্পটিকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে এই ষড়যন্ত্র করেছে।

ইউএনও আরও বলেন, ভেঙে পড়ার আগে খুঁটিটিতে কোনো ফাটল ছিল না। এমনকি হেলেও পড়েনি। আর ওপরের টিনের চাল খুঁটির মধ্যে থাকা রড দিয়ে মোড়ানো ছিল। সেখানে টিনের চালের কোনো ক্ষতি হয়নি। তাঁরা এ বিষয়ে অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে একটি মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তদন্ত করে বের করা হবে এই ষড়যন্ত্রের সঙ্গে কারা জড়িত।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন