বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

রাজশাহী প্রেসক্লাবের সভাপতি সাইদুর রহমান বলেন, ভোর ৫টা ৫০ মিনিটে হঠাৎ ভবনের বরান্দার অংশ ভেঙে পড়ে। এ সময় তিনি বাইরে হাঁটছিলেন। তিনি আরও বলেন, ১৯৪৫ সালে নির্মিত ভবনটি এখন গণপূর্ত বিভাগের অধীনে রয়েছে। নিচতলাটি রাজশাহী প্রেসক্লাবের নামে ৩০ বছরের ইজারা নেওয়া রয়েছে। ভবনটি সংস্কারের জন্য গণপূর্তের প্রকৌশলীকে বলা হয়েছিল। প্রকৌশলী বদলি হওয়ায় সংস্কারকাজটি শুরু হয়নি।

সকালে ভবনের কাছে গিয়ে দেখা যায়, অনেক মানুষ ভিড় করে ভবনের ভাঙা অংশ দেখছেন। সেখানে ছিলেন ওয়ার্কার্স পার্টির রাজশাহী মহানগর শাখার সভাপতি লিয়াকত আলী ও সাধারণ সম্পাদক দেবাশীষ প্রামাণিক। পার্টির নেতৃত্বাধীন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন জামিল ব্রিগেডের সদস্যরা ধ্বংসস্তূপ পরিষ্কার করার চেষ্টা করছেন। বিভিন্ন তার কেটে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করছেন।

দেবাশীষ প্রামাণিক বললেন, বারান্দার অংশটিই দুর্বল ছিল। তাঁরা বারান্দাটি ব্যবহার করতেন না। ভেতরের অংশ ভালো রয়েছে।

রাজশাহী ফায়ার সার্ভিসের জ্যেষ্ঠ স্টেশন কর্মকর্তা আবদুর রউফ জানান, খবর পাওয়ার পরই তাঁরা সেখানে গিয়েছিলেন। ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। এটি আর ব্যবহার করা উচিত নয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন