বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ বিষয়ে দেবেশ চন্দ্র রায় মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে বিরোধী পক্ষ আমাকে নির্বাচন থেকে সরিয়ে দিতে আমার স্বাক্ষর জাল করে ভোট স্থানান্তরের জন্য নির্বাচন কমিশন অফিসে আবেদন করেছে। বিষয়টি জানতে পেরে ইতিমধ্যে নির্বাচন কমিশন অফিসে যোগাযোগ করেছি এবং তা সমাধানের পথে রয়েছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘ঘটনাটি পুরোপুরি ষড়যন্ত্রমূলক। এখানে আমি তিনবার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছি। ফুলবাড়ি উপজেলায় ভোটার হতে যাব কেন? আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে বিচার দাবি করছি।’

উপজেলা নির্বাচন কমিশন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত আতাহারুল ইসলাম চৌধুরীসহ মোট পাঁচজন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

জেলার সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা শাহিনুর ইসলাম প্রামাণিক বলেন, ভোটার স্থানান্তরের জন্য সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাচন অফিসে দেবেশ চন্দ্রের স্বাক্ষরিত আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ভোটার এলাকা পরিবর্তন করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার মনোনয়নপত্র নিতে এসে এই পরিবর্তন দেখতে পেয়ে দেবেশ জানান, এই আবেদন তিনি করেননি। পরবর্তী সময়ে তা সংশোধনের জন্য প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর চিঠি পাঠানো হয়েছে। আজকালের মধ্যে তা সংশোধন করা হয়ে যাবে। তবে কী কারণে এমনটি ঘটেছে, তা তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দেশে চতুর্থ ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৩ ডিসেম্বর। ওই দিন ১১ নম্বর মরিচা ইউনিয়নেও ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এ জন্য মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ২৫ নভেম্বর। মনোনয়নপত্র বাছাই হবে ২৯ নভেম্বর এবং মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ সময় ৬ ডিসেম্বর।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন