বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

চৌমুহনী পৌর মিলনায়তনে ওই ভার্চ্যুয়াল অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীর প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, তারা আরও ঘটনা ঘটাতে পারে। উগ্র সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী ওপর ওপর নিষ্ক্রিয়তা দেখালেও ভেতরে-ভেতরে সক্রিয়। তারা যে সক্রিয়, তা কুমিল্লা, নোয়াখালী, রংপুর ও হাজীগঞ্জের ঘটনা প্রমাণ করেছে।

ওবায়দুল কাদের স্থানীয় নেতাদের উদ্দেশে বলেন, ‘কুমিল্লায় যখন ঘটনা ঘটেছে, তখন চৌমুহনীতে এতগুলো মন্দির, পূজামণ্ডপে হামলা-ভাঙচুর হলো, আপনারা কেন সতর্ক হলেন না। ভোটের সময় হিন্দুদের কাছে গিয়ে ভোট চান, বিপদের মুহূর্তে কেন তাঁদের পাশে দাঁড়াতে পারেননি। কুমিল্লার ঘটনার পর আপনারা সতর্ক থাকলে এসব ঘটনা ঘটত না। সবকিছু প্রশাসনের দিকে তাকিয়ে থাকলে হয় না।’ তিনি বলেন, যারা হিন্দু-মুসলমান বিরোধ সৃষ্টি করেছে, ‘তাদের চিনে রাখুন। সাম্প্রদায়িক অপশক্তির নিরাপদ আশ্রয়স্থল হচ্ছে বিএনপি। এই সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীর মুখোশ উন্মোচন করার সময় এসেছে।’

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, পৃথিবীর অন্যান্য গণতান্ত্রিক দেশে যেভাবে নির্বাচন হয়ে থাকে, বাংলাদেশেও সেভাবে আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশের সংবিধানে বলা আছে, নির্বাচন কীভাবে অনুষ্ঠিত হবে। বিএনপি নির্বাচনে এল না এল সেটার জন্য নির্বাচন থেমে থাকবে না। নির্বাচন যথাসময়ে সাংবিধানিক নিয়মেই অনুষ্ঠিত হবে।

ঢাকায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ, নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক এ এইচ এম খায়রুল আনম চৌধুরী। নোয়াখালীতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নোয়াখালী-৩ (বেগমগঞ্জ) আসনের সাংসদ মো. মামুনুর রশীদ, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এ বি এম জাফর উল্যাহ, জেলা আওয়ামী লীগের দুই যুগ্ম আহ্বায়ক শিহাব উদ্দিন ও নোয়াখালী পৌরসভার মেয়র শহীদ উল্লাহ্ খান, চৌমুহনী পৌরসভার মেয়র খালেদ সাইফুল্লাহ, বেগমগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহনাজ বেগম, চৌমুহনী পৌরসভার সাবেক মেয়র আক্তার হোসেন, নিহত যতন সাহা ও প্রান্ত দাসের পরিবারসহ হিন্দু বৌদ্ধ ঐক্য পরিষদের নেতারা।

অনুষ্ঠানে নিহত যতন সাহা ও প্রান্ত দাসের পরিবারকে এক লাখ করে এবং ক্ষতিগ্রস্ত মন্দির, পূজামণ্ডপে নগদ সাত লাখ টাকার অনুদান দেওয়া হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন