default-image

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় ধানখেত থেকে বাদল মিয়া (৬৪) নামের এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ মঙ্গলবার সকালে উপজেলার হোসেন্দী পূর্ব কুমারপুর এলাকা থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত বাদল মিয়া হোসেন্দী পূর্বপাড়া গ্রামের মৃত তাহের উদ্দিনের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, বাদল মিয়া স্ত্রী-সন্তান নিয়ে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার কামালিয়ারচর এলাকার শ্বশুরবাড়িতে বসবাস করতেন। তাঁর এক স্ত্রী প্যারালাইসিসে আক্রান্ত। গতকাল সোমবার রাতে বাদল হোসেন্দী পূর্বপাড়া গ্রামের নিজ বাড়িতে আসেন। ভোরে বাড়ি থেকে বের হন। পরে হোসেন্দী পূর্ব কুমারপুর এলাকায় রাস্তার পাশের ধানখেতে তাঁর মরদেহ দেখতে পান এলাকাবাসী। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

বাদল মিয়া একাধিক বিয়ে করেছেন। এর মধ্যে এক স্ত্রী প্যারালাইসিসে আক্রান্ত। এ নিয়ে মানসিকভাবে হতাশায় ভুগছিলেন তিনি।

পাকুন্দিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সারোয়ার জাহান স্বজনদের বরাত দিয়ে বলেন, বাদল মিয়া একাধিক বিয়ে করেছেন। এর মধ্যে এক স্ত্রী প্যারালাইসিসে আক্রান্ত। এ নিয়ে মানসিকভাবে হতাশায় ভুগছিলেন তিনি। তা ছাড়া মরদেহ উদ্ধারের সময় তাঁর পাশে কয়েকটি ঘুমের ওষুধ পাওয়া গেছে। তবে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যায়নি। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ কিশোরগঞ্জ সদর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। প্রতিবেদন পেলে মারা যাওয়ার প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন