default-image

ময়মসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা দেওয়া এক ব্যক্তি অভিযোগকারীর বাড়িতে হামলা চালিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে চারজন আহত হয়েছেন। উপজেলার আঠারবাড়ি ইউনিয়নের মৃগালি গ্রামে এ ঘটনায় আহত বৃদ্ধ মর্তুজা বেগমের ছেলে স্বপন মিয়া (৩২) বাদী হয়ে গত বৃহস্পতিবার রাতে থানায় মামলা করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার আঠারবাড়ি ইউনিয়নের মৃগালী গ্রামের মো. শহিদুল্লাহ ড্রেজার দিয়ে নিজের পুকুর খনন করছিলেন। ড্রেজারের প্রচণ্ড তোড়ে পার্শ্ববর্তী মর্তুজা বেগমের পুকুরের পাড়সহ গ্রামবাসীর চলাচলের একটি সড়ক ধসে পড়ে। এ ঘটনায় মর্তুজা বেগম গত ১৭ ফেব্রুয়ারি ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. জাকির হোসেনের কাছে অভিযোগ করেন। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে উপজলা প্রশাসন থেকে নিষেধ করা হলেও শহিদুল্লাহ তা উপেক্ষা করেন। গত মঙ্গলবার (৯ মার্চ) ইউএনও জাকির হোসেন সরেজমিন ঘটনা পরিদর্শন করে সত্যতা পেয়ে শহিদুল্লাহকে আটক করেন। তিনি দোষ স্বীকার করলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শহিদুল্লাহকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে প্রশাসনের লোকজন চলে যাওয়ার পর শহিদুল্লাহ ও তাঁর ছেলেরা একযোগে মর্তুজা বেগমের বাড়িতে হামলা চালান। এতে মর্তুজা বেগম (৬০), তাঁর ছেলের বউ নাদিরা বেগম (৩০), নাতি মুর্শেদা খাতুন (১২), মাসুদা (৭) আহত হয়। মামলায় শহিদুল্লাহ, তাঁর এক ছেলেসহ সাতজনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি মো. আবদুল কাদের মিয়া মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ চেষ্টা করছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন