বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য লিয়াকত আলী, সুলতানাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান ও সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুর রব; ফতেপুর পূর্ব ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য নুরুল ইসলাম পাটোয়ারী, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী সালাউদ্দিন ও সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ইসহাক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য গোলাম নবী, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি মোশারফ হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মো. শাহজাহান, ৫ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মনির পাটোয়ারী এবং ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি মজিদ ব্যাপারীকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

আরও যাঁরা দল থেকে বহিষ্কৃত হয়েছেন তাঁরা হলেন বাগানবাড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবদুস ছাত্তার, আইনবিষয়ক সম্পাদক মোতাহার হোসেন, ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ; উপজেলা আওয়ামী লীগের সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক জুবাইর আজম পাঠান, ষাটনল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য আনিসুর রহমান, ফরাজীকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য কামাল হোসেন গাজী, এখলাশপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য সাইফুল ইসলাম।

ফতেপুর পূর্ব ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদ্য বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক কাজী সালাউদ্দিন বলেন, তাঁর ইউপিতে যোগ্য ও জনপ্রিয় প্রার্থীকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়নি। বিতর্কিত একজনকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। এ কারণে তৃণমূল পর্যায়ের অনেক নেতা-কর্মী দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে কাজ করছেন। তিনি তাঁর বহিষ্কারের বিষয়টি জেনেছেন। তবে এ-সংক্রান্ত চিঠি এখনো পাননি।

উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মু. কবির হোসেন বলেন, গঠনতন্ত্র অনুসারে দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে ওই নেতাদের বহিষ্কার করা হয়। এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন