default-image

মাগুরা সদর উপজেলার আঠারোখাদা ইউনিয়নে মদ্যপানের পর গত সোমবার ৯ জন অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাঁদের মধ্যে এক কিশোর আজ বুধবার মারা গেছে। ফরিদপুর জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।

১৮ বছরের কম বয়স হওয়ার কারণে ওই কিশোরের পরিচয় প্রকাশ করা হলো না।

জানতে চাইলে ফরিদপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জয়নাল আবেদীন বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ওই কিশোরের বাড়ি গিয়েছিল। পরিবার জানিয়েছে, মদ্যপানের পর সে অসুস্থ হয়ে পড়েছিল। এ বিষয়ে অভিযোগ না থাকায় পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

পরিবার জানিয়েছে, মদ্যপানের পর সে অসুস্থ হয়ে পড়েছিল। এ বিষয়ে অভিযোগ না থাকায় পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।
জয়নাল আবেদীন, ওসি, ফরিদপুর সদর থানা
বিজ্ঞাপন

অসুস্থ অন্য ব্যক্তিদের মধ্যে রুহোল সরদার (১৯) ও সজীব বিশ্বাস (২৯) নামের দুজন ফরিদপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। পার্থ বিশ্বাস (২৪), শুভ বিশ্বাস (২২), দীপঙ্কর বিশ্বাসসহ (২৩) আরও তিন কিশোরকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তাঁদের বাড়ি প্রতাপ গ্রামে।

আঠারোখাদা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান সঞ্জীবন বিশ্বাস জানান, গত সোমবার রাতে ওই ৯ জন মদ পান করেন। এরপর তাঁরা অসুস্থ হন। পরদিন সকালে তাঁদের ফরিদপুর জেলা সদর হাসপাতাল ও ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ফরিদপুর জেলা সদর হাসপাতালে আজ সকালে এক কিশোর মারা যায়।

জানতে চাইলে মাগুরার সিভিল সার্জন প্রদীপ কুমার সাহা বলেন, অনেক ক্ষেত্রে ভেজাল ও অতিরিক্ত মদ্যপানের কারণে বিষক্রিয়া ঘটে এ ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

মন্তব্য পড়ুন 0