default-image

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলায় এক স্কুলছাত্রীর বিয়ের আয়োজন করার দায়ে ওই ছাত্রীর বোন ও দুলাভাইকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জাহাঙ্গীর আলম। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে এই অর্থদণ্ড আদায় করা হয়।

উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা হাবিবা খাতুন বলেন, স্কুলছাত্রীর বয়স কম হওয়ায় রাতের অন্ধকারে বিয়ের আয়োজন করা হয়েছিল। এই বিয়ের আয়োজন করেন ওই ছাত্রীর বোন ও দুলাভাই। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তিনি ও ইউএনও গতকাল মধ্যরাতে বিয়েবাড়িতে হাজির হন। তাঁদের উপস্থিতি টের পেয়ে বর পালিয়ে যান। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত ওই ছাত্রীর দুলাভাইকে ২০ হাজার ও বড় বোনকে ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেন। তাঁরা তখনই জরিমানা পরিশোধ করেন।

ইউএনও জাহাঙ্গীর আলম খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, মেয়ের বয়স ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবেন না বলে মায়ের কাছ থেকে মুচলেকা নেওয়া হয়েছে। প্রশাসন ও প্রতিবেশীদের নজর এড়াতে মধ্যরাতে বিয়ের আয়োজন করা হয়েছিল বলে তিনি জানান।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন