default-image

রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলায় মসজিদের ধান চুরি নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে উপজেলার মৌগাছি ইউনিয়নের খয়রা মাটিকাটা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ওই ব্যক্তির নাম কোব্বাস আলী (৬০)। তিনি খয়রা মাটিকাটা গ্রামের বাসিন্দা। এ ঘটনায় আহত সাতজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। প্রাথমিকভাবে তাঁদের নাম জানা যায়নি।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মাসখানেক আগে স্থানীয় মসজিদ থেকে ২০ কেজি ধান চুরি হয়। গ্রামবাসীর সন্দেহ, কোব্বাস আলীর ভাগনে সাদ্দাম হোসেন (২০) এসব ধান চুরি করেন। মসজিদ কমিটির অন্যতম সদস্য কোব্বাস আলী ঘটনাটি সালিস করে মীমাংসা করেন। কিন্তু মুসল্লিদের একটি পক্ষ তা মেনে নেয়নি। এ নিয়ে কয়েক দিন ধরেই উত্তেজনা চলছিল। গতকাল রাত আটটার দিকে এলাকার কয়েকজনের সঙ্গে কোব্বাস আলীর কথা-কাটাকাটি হয়। এরই মধ্যে ঘটনাস্থলে আসেন কোব্বাস আলীর স্বজনেরা। একপর্যায়ে দুই পক্ষ ধারালো দেশীয় অস্ত্র ও লাঠিসোঁটা নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে কোব্বাস আলী ও তাঁর দুই ছেলে আহত হন। প্রতিপক্ষেরও চার থেকে পাঁচজন আহত হন। আহত ব্যক্তিদের মোহনপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক কোব্বাস আলীকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত ব্যক্তিদের সেখান থেকে রাতেই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

বিজ্ঞাপন

মোহনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তৌহিদুল ইসলাম বলেন, নিহত ব্যক্তির লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। হামলায় দুই পক্ষের একাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন। তাঁরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এ ঘটনায় নিহত ব্যক্তির পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা প্রক্রিয়াধীন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন