বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গতকাল রাতে মারা যাওয়া কামাল উদ্দিন ঘটনার দিন মারা যাওয়া ফরিদ উদ্দিনের ছোট ভাই। তিনি নিহত আফিফ হোসেনের বাবা। এ নিয়ে দুর্ঘটনায় একই পরিবারের তিনজন মারা গেলেন। তাঁরা নগরের আম্বরখানার লোহারপাড়ার বাসিন্দা।

কামালের এক আত্মীয় রিজভী আহমেদ বলেন, দুর্ঘটনায় কামাল গুরুতর আহত হন। অচেতন অবস্থায় চিকিৎসাধীন ছিলেন। দুর্ঘটনায় কামালের স্ত্রী রুমি বেগম (৩৪), কামালের বোন লিলি বেগম (৫৫), তাঁর মেয়ে রাবেয়া বেগমসহ (২৪) চারজন নগরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, রোববার একটি পারিবারিক অনুষ্ঠানে অংশ নিতে দুটি মাইক্রোবাসে করে কুলাউড়ার ভাটেরায় যাচ্ছিলেন সিলেট নগরীর আম্বরখানা এলাকার ফরিদ উদ্দিনের পরিবারের সদস্যরা। দুপুর সাড়ে ১২টায় ভাটেরা এলাকার হোসেনপুর গ্রামে প্রবেশের সময় একটি মাইক্রোবাস রেলক্রসিং অতিক্রম করে। পেছনের মাইক্রোবাস রেলক্রসিং অতিক্রমের সময় চলন্ত ট্রেন ধাক্কা দেয়।

কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, দ্রুতগামী ট্রেনটি প্রায় অর্ধকিলোমিটার টেনেহিঁচড়ে নিয়ে যায় মাইক্রোবাসটিকে। এতে দুমড়েমুচড়ে যায় মাইক্রোবাসটি। মাইক্রোবাসের দুই যাত্রী ঘটনাস্থলেই নিহত হন। আহত অবস্থায় ছয়জনকে উদ্ধার করে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাঁদের স্বজনেরা নগরীর দুটি বেসরকারি হাসপাতালে স্থানান্তর করে ভর্তি করেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন