default-image

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলায় মাইক্রোবাসের ধাক্কায় ব্যাটারিচালিত ভ্যানের এক যাত্রী নিহত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সরোজগঞ্জ-দর্শনা সড়কের হিজলগাড়ি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত ইউসুফ হোসেনের বাড়ি দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের বাঘাডাঙ্গা গ্রামে। এ দুর্ঘটনায় ইউসুফ হোসেনের স্ত্রী মঞ্জুরা বেগম (৬৩) ও শ্যালিকা ফাহিমা খাতুন (৪০) আহত হয়েছেন। ফাহিমার বাড়ি ঝিনাইদহের ডাকবাংলা বাজারে। দর্শনা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শেখ মাহবুবুর রহমান এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মঞ্জুরা বেগম জানান, স্বামী, বোনসহ তিনি বাবার বাড়ি ডাকবাংলা বাজার থেকে ভ্যানে চড়ে বাঘাডাঙ্গা গ্রামের বাড়িতে যাচ্ছিলেন। হিজলগাড়ি ইটভাটার কাছে পৌঁছালে পেছন থেকে একটি মাইক্রোবাস ভ্যানটিকে ধাক্কা দেয়। তাঁরা তিনজনই রাস্তায় ছিটকে পড়ে আহত হন। মাইক্রোবাসের চালক তাঁদের নিয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে আসেন। হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ওয়াহিদ মাহমুদ তাঁকে (ইউসুফ হোসেন) মৃত ঘোষণা করেন। আহত দুজনকে হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

চিকিৎসক ওয়াহিদ মাহমুদ বলেন, মূলত মাথায় আঘাতের কারণে ইউসুফ হোসেনের মৃত্যু হয়েছে। আহত দুজনই ঝুঁকিমুক্ত।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন