বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গত ৩০ অক্টোবর রাত ১০টার দিকে বঙ্গোপসাগর থেকে মাছ ধরে কূলে ফেরার পথে নৌকায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়ে ৯ জেলে দগ্ধ হন। আহত ছেলেদের মধ্যে ৬ জন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিট ও শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

আহত জেলেরা জানান, ৩০ অক্টোবর রাতে কুতুবদিয়া উপজেলার দক্ষিণ ধুরুং ইউনিয়নের মোহাম্মদ আকতারের মালিকানাধীন একটি নৌকা বঙ্গোপসাগর থেকে মাছ ধরে কূলে ফিরছিলেন। ওই দিন রাত ১০টার দিকে মাছ ধরা নৌকাটি দক্ষিণ ধুরং ঘাটের কাছাকাছি এলে হঠাৎ গ্যাস সিলিন্ডারের বিস্ফোরণ হয়। এতে মাছ ধরা নৌকায় দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়লে জেলেরা দিগ্‌বিদিক ছোটাছুটি করেন। একপর্যায়ে ১২ জন জেলে সাগরে ঝাঁপ দেন। খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন আহত অবস্থায় ১২ জেলেকে উদ্ধার করেন। এ সময় আহত জেলেদের মধ্যে নয়জন গুরুতর দগ্ধ হন।

দগ্ধ জেলেরা হলেন মোহাম্মদ জিসাদ (২৪), মোহাম্মদ সাইফুল (২২), ফরিদুল আলম (৪৩), নুরুল হোসাইন (৩৫), মোহাম্মদ মিনহাজ (১৪), মোহাম্মদ দিলশাদ (২০), দিলশাদ উদ্দিন (১৭), মোহাম্মদ সাদ্দাম (২৫) ও মোহাম্মদ মামুন (২৪)।

পরে আহত ব্যক্তিদের মধ্যে দগ্ধ আটজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে তিনজনের অবস্থা গুরুতর। তাঁদের উন্নত চিকিৎসার জন্য শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট স্থানান্তর করা হয়।

জানতে চাইলে কুতুবদিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ওমর হায়দার বলেন, গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ হয়ে ৯ জেলে আহত হয়েছিলেন। তাঁদের মধ্যে ফরিদুল আলম রোববার দুপুরে মারা যান।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন