বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ডোয়াইল এলাকার বালিয়া গ্রামের নাজমুল মিয়া দীর্ঘদিন ধরে গাঁজা সেবন করে আসছিলেন। মাদক গ্রহণের পর নাজমুল প্রায়ই পরিবারের লোকজনের ওপর অত্যাচার করতেন। আজ দুপুরে নাজমুল গাঁজা সেবনের জন্য বাবা হানিফ উদ্দিনের কাছে টাকা চান। হানিফ টাকা দিতে না পারায় নাজমুল তাঁকে মারধর করেন।

সরিষাবাড়ী থানা–পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মারধর সহ্য করতে না পেরে জাতীয় জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ ফোন করে সাহায্য চান হানিফ। পরে ৯৯৯ থেকে বিষয়টি সরিষাবাড়ী থানা–পুলিশকে জানানো হয়। পুলিশ হানিফ উদ্দিনের বাড়িতে গিয়ে নাজমুলকে আটক করে।

হানিফ উদ্দিন বলেন, মাদকের টাকা না দেওয়ায় নাজমুল তাঁকে মারধর করেন। পরিবারের সবাই নাজমুলের নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে ওঠায় ৯৯৯–এ ফোন দেন। পরে বাড়িতে পুলিশ এলে ছেলেকে সোপর্দ করেন। এ ঘটনায় তিনি থানায় মামলা করেছেন।

সরিষাবাড়ী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আবদুল মজিদ বলেন, নাজমুলের বিরুদ্ধে তাঁর বাবা বাদী হয়ে থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেছেন। পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন