বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নিহত ব্যক্তির সঙ্গে থাকা মুঠোফোনের সূত্র ধরে তাঁর নাম-পরিচয় জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। ওই মুঠোফোনে থাকা কয়েকটি নম্বরে কল করে জানা গেছে, ওই লরিচালকের নাম মো. পারভেজ। তাঁর বয়স আনুমানিক ৩৮ বছর। পারভেজের বাড়ি ভোলা জেলায়। তবে তাঁর প্রকৃত নাম-পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

হাইওয়ে পুলিশ ও কয়েকজন স্থানীয় বাসিন্দা বলেন, ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ধরে মালবাহী লরিটি রাজধানী ঢাকার দিকে যাচ্ছিল। অন্যদিকে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী একটি বাস ভৈরবের দিকে যাচ্ছিল। সকাল ১০টার দিকে মাধবদীর কান্দাইল বাসস্ট্যান্ড এলাকা অতিক্রম করার সময় বাস ও লরিটির মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই ওই লরিচালক মো. পারভেজ নিহত হন।

খবর পেয়ে মাধবদী থানার পুলিশ ও ভুলতা হাইওয়ে পুলিশ ক্যাম্পের সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করেন। এ দুর্ঘটনায় যাত্রীবাহী বাসটির অন্তত পাঁচ যাত্রী আহত হয়েছেন। তাদের আশপাশের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এ সময় বাস ও লরি জব্দ করে নিয়ে যান ভুলতা হাইওয়ে পুলিশ ক্যাম্পের সদস্যরা।
মাধবদী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মুরাদ হোসেন জানান, দুর্ঘটনায় মৃত ব্যক্তির লাশ এবং জব্দ করা বাস ও লরি ভুলতা হাইওয়ে পুলিশ ক্যাম্পে রাখা আছে। নিহতের স্বজনদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চলছে। তাঁরা এলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন