বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

হত্যাকাণ্ডের শিকার তিনজন হলেন মোস্তফা সওদাগর (৫৬), তাঁর স্ত্রী জোছনা আক্তার (৪৫) ও তাঁদের ছেলে আহমেদ হোসেন (২৫)। এ ঘটনায় পুলিশ নিহত মোস্তফা সওদাগরের বড় ছেলে সাদেক হোসেনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

এ হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে জানতে চাইলে জোরারগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নুর হোসেন মামুন প্রথম আলোকে বলেন, মধ্যম সোনাপাহাড় এলাকায় এক পরিবারের তিনজন খুন হওয়ার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। নিহত তিনজনকেই ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। পারিবারিক কলহের জেরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন