default-image

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর পৌরসভা নির্বাচনে পুলিশের ওপর পরাজিত এক কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের হামলার অভিযোগ উঠেছে। এতে মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিজাউল হকসহ পুলিশের চার সদস্য আহত হয়েছেন। আজ শনিবার রাত সোয়া সাতটার দিকে পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের পোস্টকামুরী পূর্বপাড়া (সওদাগরপাড়া) এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত পুলিশের অন্য সদস্যরা হলেন মির্জাপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আজিম খান, কনস্টেবল মোশারফ হোসেন ও মাহামুদুল হাসান। তাঁরা মির্জাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ওসি রিজাউলের বাঁ পা ও কাঁধে আঘাত লেগেছে। মোশারফের এক পা ভেঙে গেছে। ইটের আঘাতে মাহামুদুলের ডান পা ফুলে গেছে। আজিম খান পায়ে ব্যথা পেয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের আম্বাতুন্নেছা কিন্ডারগার্টেন কেন্দ্রে ভোট গণনা শেষে সন্ধ্যায় ফল ঘোষণা করা হয়। এরপর পরাজিত এক প্রার্থীর সমর্থকেরা ওই এলাকার চার রাস্তার মোড়ে গাছের গুঁড়ি ফেলে অবরোধ করেন। পুলিশ ওই স্থান দিয়ে ব্যালট বাক্সসহ রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে আসার রাস্তায় বাধার সম্মুখীন হয়। পুলিশ রাস্তা থেকে গাছের গুঁড়ি সরাতে যায়। তখন তাঁরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করেন। এতে পুলিশের গাড়ির কাচ ভেঙে যায়। একই সঙ্গে পুলিশের চার সদস্য আহত হন। এ সময় পুলিশ ৯টি রাবার বুলেট ছোড়ে।

ওসি রিজাউল হক বলেন, কাউন্সিলর পদে পরাজিত প্রার্থী মিন্টু সওদাগরের সমর্থকেরা পুলিশের ওপর হামলা করেছেন। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

এ বিষয়ে জানতে আজ রাতে মিন্টু সওদাগরের মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি ফোন ধরেননি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন