default-image

মুন্সিগঞ্জের মীরকাদিম পৌরসভার মেয়র আবদুস সালামের দগ্ধ স্ত্রী কাঁকন বেগম (৪০) মারা গেছেন। আজ শনিবার বেলা দেড়টার দিকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে লাইফ সাপোর্টে থাকা অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়।

নিহত কাঁকন বেগমের ভাগনে মো. রাজিব হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, তাঁর খালাকে ৬ এপ্রিল দগ্ধ অবস্থায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে ভর্তি করা হয়। চার দিন আইসিইউতে রেখে চিকিৎসা করা হয়। গতকাল শুক্রবার চিকিৎসকেরা ১৫ ব্যাগ রক্ত জোগাড় করতে বলেন। ১১ ব্যাগের ব্যবস্থা হয়। গতকাল রাতে তাঁকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। আজ দুপুরের দিকে তিনি মারা যান।

৬ এপ্রিল রাত সাড়ে আটটার দিকে মীরকাদিম পৌরসভার মেয়র আবদুস সালাম তাঁর রামগোপালপুরের বাড়িতে পৌর কাউন্সিলর ও পৌরসভার কর্মীদের নিয়ে সভা করছিলেন। সে সময় বিস্ফোরণ ঘটে। এতে মেয়রের স্ত্রী কাঁকন বেগম, চারজন কাউন্সিলরসহ ১৩ জন দগ্ধ হন। তাঁদের মধ্যে মেয়রের স্ত্রী কাঁকন বেগম, রহিম বাদশা, মো. আওলাদ হোসেন, মো. তাজুল ইসলাম, মো. মাইনুদ্দিন, মোশারফ হোসেন, শ্যামল দাস, পান্না মিয়া ও কালু মিয়াকে গুরুতর অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

মীরকাদিম পৌরসভার মেয়র আবদুস সালাম ও তাঁর স্বজনদের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, ঘটনাটি পরিকল্পিত।

তবে ঘটনার পরপর পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস, সিআইডি ও বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটের সদস্যরাও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। সেখানকার যাবতীয় আলামত পর্যবেক্ষণ করে গ্যাস লিকেজ থেকে বিস্ফোরণ ঘটেছে বলে নিশ্চিত হন বিশেষজ্ঞরা।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন