বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আহত শাহরিয়ারকে চিকিৎসার জন্য প্রথমে তাড়াশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মুঠোফোনে গেম খেলাকে কেন্দ্র করে শাহরিয়ারের সঙ্গে তাঁর তিন সহপাঠীর বিরোধ সৃষ্টি হয়। এর জেরে গতকাল রাতে মনোহরপুরে শাহরিয়ারের তিন সহপাঠী তার পথ রোধ করে। এরপর ওই তিনজন তাকে ধরে মাটিতে ফেলে ধারালো চাকু দিয়ে গলায় আঘাতের চেষ্টা করে। এ সময় শাহরিয়ারের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে ওই তিন কিশোর পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মাদ্রাসার মুহতামিম সিদ্দিকুর রহমান বলেন, কেন এমন ঘটনা ঘটল, তা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।

তাড়াশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ফজলে আশিক প্রথম আলোকে বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, মুঠোফোনে গেম খেলাকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট বিরোধেই এমন ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে রাতেই পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তবে আহত ওই ছাত্রের পরিবার থেকে থানায় কোনো অভিযোগ জানানো হয়নি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন