default-image

মুন্সিগঞ্জে ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৭১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনায় সংক্রমিত ব্যক্তির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২ হাজার ১৭৭। নতুন করে মারা গেছেন একজন। আর সুস্থ হয়েছেন আরও ৪০ জন। আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে এসব তথ্য জানান মুন্সিগঞ্জ সিভিল সার্জন আবুল কালাম আজাদ।

সিভিল সার্জন জানান, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব প্রিভেন্টিভ অ্যান্ড সোশ্যাল মেডিসিনের (নিপসম) ল্যাবে পাঠানো নমুনার মধ্যে ৩১৬টি নমুনার ফল এসেছে। সেখানে ৭১ জনের করোনা ‘পজিটিভ’ ফল এসেছে, যা পরীক্ষা করা নমুনার ২২ দশমিক ৪৭ শতাংশ।

সিভিল সার্জন আরও জানান, গত জুনের প্রথম দিকে সংক্রমণের হার খুব বেশি ছিল। এখন জেলায় এই হার স্থিতিশীল রয়েছে। সংক্রমণ কমিয়ে আনতে সবাইকে আরও বেশি সচেতন হতে হবে। বিনা প্রয়োজনে বাইরে যাওয়া বন্ধ করতে হবে। বাইরে গেলে অবশ্যই মাস্ক পরতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারি নির্দেশ মেনে জীবন যাপন করতে হবে।

নতুন সংক্রমিত ৭১ জনের মধ্যে মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলায় রয়েছেন ৩৮ জন, টঙ্গিবাড়ী উপজেলায় ২ জন, সিরাজদিখান উপজেলায় ১৫ জন, লৌহজং উপজেলায় ৫ জন, শ্রীনগর উপজেলায় ৬ জন ও গজারিয়া উপজেলায় ৫ জন রয়েছেন।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, গত সোমবার ১২৩ জনসহ এ পর্যন্ত জেলা থেকে মোট ১০ হাজার ৬০০ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। ইতিমধ্যে ১০ হাজার ২৬১ জনের নমুনার রিপোর্ট পাওয়া গেছে। ফলাফলের অপেক্ষায় রয়েছেন আরও ৩৩৯ জন। এ পর্যন্ত জেলায় মোট সংক্রমিত ২ হাজার ১৭৭ জনের মধ্যে সদর উপজেলায় ৯৩১ জন, টঙ্গিবাড়ী উপজেলায় ১৯৮ জন, সিরাজদিখান উপজেলায় ৩৩২ জন, লৌহজং উপজেলায় ২৯১ জন, শ্রীনগর উপজেলায় ১৯৪ জন ও গজারিয়া উপজেলায় ২৩১ জন করোনায় সংক্রমিত রোগী শনাক্ত হয়েছেন।

এর মধ্যে শ্রীনগরে নতুন একজনসহ জেলায় করোনায় মারা গেছেন ৫২ জন। তাঁদের মধ্যে সদর উপজেলায় ২৪ জন, টঙ্গিবাড়ী উপজেলায় ৯ জন, সিরাজদিখান উপজেলায় ৮ জন, শ্রীনগর উপজেলায় ৪ জন, লৌহজং উপজেলায় ৫ জন ও গজারিয়া উপজেলায় ২ জন মারা গেছেন।

এদিকে নতুন করে মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলায় ১২ জন, টঙ্গিবাড়ী উপজেলায় ৮ জন, সিরাজদিখান উপজেলায় ১২ জন ও শ্রীনগর উপজেলায় ৮ জন সুস্থতার ছাড়পত্র পেয়েছেন। এ নিয়ে মুন্সিগঞ্জ জেলায় করোনা থেকে সুস্থ হওয়া ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭৮৩।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0