default-image

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলায় একটি মুরগির খামারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক মেয়েশিশুর মৃত্যু হয়েছে। আজ সোমবার সকালে শিশুটির লাশ ময়নাতদন্তের জন্য স্থানীয় হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

মারা যাওয়া ওই শিশুর নাম খাদিজা আক্তার (৭)। সে গোয়ালন্দ উপজেলার ছোটভাকলা ইউনিয়নের অম্বলপুর নলডুবি গ্রামের মো. মুঞ্জু ফকিরের মেয়ে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় ব্যবসায়ী মো. ফরহাদ সরদার জানান, মেয়েটির বাড়ি থেকে প্রায় ৫০০ গজ দূরে স্থানীয় জসিম সরদারের মুরগির খামার। শিয়াল-খাটাশের উৎপাতের কারণে দীর্ঘদিন ধরে খামারের নিচে চারপাশে তারের সঙ্গে বিদ্যুতের সংযোগ দেওয়া। গতকাল রোববার সন্ধ্যায় খেলাধুলার একপর্যায়ে মেয়েটি খামারের ওই তারের সঙ্গে জড়িয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়। পরে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

বিজ্ঞাপন

শিশুটির মামা আবদুল আলিম মোল্লা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘স্থানীয় ইউসুফ সরদারের ছেলে জসিম সরদার ও তাঁর স্ত্রীর আচরণে এলাকার সবাই অতিষ্ঠ। প্রায় এক বছর ধরে খামারের তারে বিদ্যুৎ–সংযোগ দিয়ে রাখায় মাঝেমধ্যে দুর্ঘটনা ঘটে। কিন্তু তাঁরা এ বিষয়ে কোনো কর্ণপাত করেন না। আমার ভাগনিকে হারিয়েছি, তাঁরা কি পারবেন আমার ভাগনিকে ফিরিয়ে দিতে? আমরা এর সঠিক বিচার চাই।’

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল তায়াবীর বলেন, খবর পেয়ে রাতেই এক এসআইকে ঘটনা তদন্তে পাঠানো হয়। লাশটি উদ্ধারের পর সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে আজ সোমবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় শিশুটির বাবা মুঞ্জু ফকির বাদী হয়ে গতকাল রাতেই থানায় একটি মামলা করেছেন।

মন্তব্য পড়ুন 0