বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আদালতের পুলিশ পরিদর্শক আবদুল লতিফ খান বলেন, আদালতে মামলার আবেদন করার বিষয়টি তিনি জেনেছেন। তবে আদালত এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত জানাননি।

মামলার আবেদনে বলা হয়, খালেদা জিয়ার নাতনি ও তারেক রহমানের মেয়ে জাইমা রহমান লন্ডনে আইন পেশায় নিয়োজিত। জাইমা রহমান সম্পর্কে মানহানিকর ও মিথ্যা তথ্যসংবলিত বক্তব্য দিয়েছেন ও তা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচার করেছেন মামলার ১ নম্বর আসামি মুরাদ হাসান ও ২ নম্বর আসামি মহিউদ্দিন হেলাল।এতে জাইমা রহমান ও বিএনপির প্রতি বিদ্বেষ ও ঘৃণা ছড়ানোর অপরাধ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে মামলার আবেদনকারী মোজাহিদুল বলেন, ‘আমি মামলার আবেদন করেছি। আদালত আদেশের জন্য রেখেছেন।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন