বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নাতনি জাইমা রহমান সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্যের অভিযোগে আজ দুপুরে মামলার আবেদন করেছিলেন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের পঞ্চগড় জেলা শাখার সভাপতি মির্জা নাজমুল ইসলাম। শুনানি শেষে মামলার আবেদনটি খারিজ করে দেন আদালত। শুনানির সময় আদালতে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের প্রায় ৪০ জন আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন।
আদালত-সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, পঞ্চগড় চিফ জুডিশিয়াল আদালতে সাবেক তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান ও ডিজিটাল মিডিয়া উপস্থাপক মহিউদ্দিন হেলালের নামে মামলার আবেদন করা হয়।

মামলায় বাদী উল্লেখ করেন, খালেদা জিয়ার নাতনি ও তারেক রহমানের মেয়ে জাইমা রহমান লন্ডনে আইন পেশায় নিয়োজিত। ১ ডিসেম্বর মুরাদ হাসান ও উপস্থাপক মহিউদ্দিন হেলাল ভার্চ্যুয়াল একটি টক শোতে জাইমা রহমান সম্পর্কে অত্যন্ত কুরুচিপূর্ণ, অশালীন, নারীবিদ্বেষী ও মানহানিকর বক্তব্য দেন। জিয়াউর রহমানে পরিবার ও তাঁর নাতনি জাইমাকে অপমান-অপদস্থ ও হেয়প্রতিপন্ন করতেই অনুষ্ঠানের ভিডিও অভিযুক্ত দুই ব্যক্তি ছড়িয়ে দিয়েছেন।

মামলার আবেদন খারিজ করে দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বাদী ও পঞ্চগড় জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি মির্জা নাজমুল ইসলাম বলেন, আদালতে বাদী হিসেবে মামলার পক্ষে তিনি জবানবন্দি দিয়েছেন। আদালত জবানবন্দি রেকর্ড করেছেন। মামলার পক্ষে প্রায় ৪০ জন আইনজীবী আদালতে উপস্থিত ছিলেন। মামলার সাক্ষীও আছেন। এ ছাড়া ভিডিও ও স্থিরচিত্র আদালতে পেশ করা হয়েছে। শুনানি শেষে আদালত মামলার আবেদনটি খারিজ করে দিয়েছেন। আদালতের আদেশের কপি তুলে এ বিষয়ে তাঁরা সিদ্ধান্ত নেবেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন