default-image

করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) সংক্রমিত হয়ে আত্রাই উপজেলায় মফিজ উদ্দিন (৫৬) নামের এক ব্যক্তি মারা যান ২১ জুন। করোনার উপসর্গ থাকায় ১৯ জুন তাঁর নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল। গতকাল রোববার রাতে তাঁর নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসে। প্রতিবেদনে জানা গেছে, তিনি করোনা ‘পজিটিভ’ ছিলেন। 

মারা যাওয়া ওই ব্যক্তি উপজেলার শাহাগোলা ইউনিয়নের ভবানীপুর গ্রামের বাসিন্দা।

আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রোকসানা পারভীন জানান, ১৯ জুন সকালে মফিজ উদ্দিন জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসেছিলেন। উপসর্গ দেখে করোনা আক্রান্ত সন্দেহ হলে ওই দিন তাঁর নমুনা সংগ্রহ করা হয় এবং বাড়িতে কোয়ারেন্টিনে (সঙ্গনিরোধ) থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়। পর দিন ২১ জুন রাতে নিজ বাড়িতেই তাঁর মৃত্যু হয়। পরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাঁর দাফন সম্পন্ন করা হয়। মারা যাওয়ার ছয় দিন পর গতকাল রোববার রাতে ঢাকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ল্যাবরেটরি মেডিসিন অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার থেকে পাঠানো নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে তাঁর করোনা ‘পজিটিভ’ ধরা পড়ে। ইতিমধ্যে তাঁর পরিবারের সদস্যদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এখনো তাঁদের নমুনা পরীক্ষার ফলাফল আসেনি।

করোনায় সংক্রমিত হয়ে আত্রাই উপজেলায় এটি প্রথম মৃত্যুর ঘটনা। এ নিয়ে নওগাঁ জেলায় কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়ে ছয়জনের মৃত্যু হলো।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন