default-image

চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় পিকনিকে গিয়ে মেঘনা নদীতে গোসলে নেমে নিখোঁজ তরুণের চার দিনেও সন্ধান মেলেনি। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত তাঁর কোনো হদিস পাওয়া যায়নি। গত রোববার দুপুরে উপজেলার মোহনপুর এলাকায় মেঘনায় গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হন সাজ্জাদ হোসেন (২০)।

নিখোঁজ সাজ্জাদ হোসেনের বাড়ি বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার বালিগ্রামে। তিনি একই গ্রামের মাইনুল হকের ছেলে। সাজ্জাদ ঢাকার নিউ মার্কেট এলাকায় একটি দোকানের কর্মচারী হিসেবে কাজ করতেন।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রোববার বন্ধুদের নিয়ে ঢাকার সদরঘাট থেকে মানিক-৯ নামের একটি যাত্রীবাহী লঞ্চে করে পিকনিকের উদ্দেশে সাজ্জাদ হোসেন মতলব উত্তর উপজেলার মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্রে আসেন। দুপুরে বন্ধুদের নিয়ে তিনি পর্যটন কেন্দ্রটির পাশে মেঘনা নদীতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হন। সেখানে ও আশপাশের এলাকায় অনেক খোঁজাখুঁজির পরও বন্ধুরা তাঁর হদিস পাননি। তাঁরা ঘটনাটি পরিবারকে মুঠোফোনে জানালে ওই দিন রাতে ওই তরুণের ছোট ভাই সাব্বির রহমান ঘটনাস্থলে আসেন এবং মোহনপুর নৌ-পুলিশ ফাঁড়িতে এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ করেন।

বিজ্ঞাপন

সাব্বির রহমান বলেন, নিখোঁজের চার দিন পার হতে চললেও এখনো তাঁর ভাইয়ের সন্ধান পাননি। তাঁর ভাই বেঁচে আছেন কি না, তাও জানেন না। ভাইয়ের সন্ধান না পেয়ে তিনি ও তাঁর পরিবারের সব সদস্য চরম দুশ্চিন্তায় আছেন। এ বিষয়ে নৌ-পুলিশের সহযোগিতা চেয়েছেন।

উপজেলার মোহনপুর নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক (আইসি) মোহাম্মদ হোসেন বলেন, লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর ফাঁড়ির কয়েকজন সদস্য নিয়ে তিনি একাধিকবার ঘটনাস্থলে যান এবং সেখানে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও ওই তরুণের সন্ধান পাননি। তাঁদের সন্ধানপ্রচেষ্টা অব্যাহত আছে। খোঁজ পেলে সঙ্গে সঙ্গে তাঁর পরিবারকে জানানো হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন