মেস মালিক সমিতির পাল্টা 'ছাত্রছাত্রী ঐক্য পরিষদ'

বিজ্ঞাপন
default-image

রাজশাহীতে মেস মালিকদের সঙ্গে মেসভাড়া সংক্রান্ত জটিলতার মধ্যে শিক্ষার্থীদের নতুন সংগঠনের আত্মপ্রকাশ ঘটেছে। ‘রাজশাহীর সাধারণ ছাত্র/ছাত্রী ঐক্য পরিষদ’ নামে সংগঠনটি শুধু মেসভাড়া নয়, মেসে থাকা শিক্ষার্থীদের অন্যান্য সমস্যার বিষয়টিও দেখবে বলে ঘোষণা দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ‘রাজশাহীর মেসভাড়া মওকুফের দাবি’ নামক একটি গ্রুপে এই সংগঠনের ঘোষণা দেওয়া হয়। ওই গ্রুপের সদস্য সংখ্যা ২০ হাজারের বেশি।

‘রাজশাহীর সাধারণ ছাত্র/ছাত্রী ঐক্য পরিষদ’ আপাতত আহ্বায়ক কমিটি দিয়ে চলবে। ২৬ জন সদস্যের একটি আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। আহ্বায়ক হয়েছেন মো. রাজু আহমেদ নামের একজন। তিনি নগরের মুন্নাফের মোড় এলাকার একটি মেসে থাকেন। আগামী কয়েক দিনের মধ্যে রাজশাহীর সব বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজকে নিয়ে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

এর আগে গত ১০ মে জেলা প্রশাসক দপ্তর থেকে মেসভাড়া ৪০ শতাংশ মওকুফের সিদ্ধান্ত আসার পর গত ১৭ মে ‘রাজশাহী মহানগর মেস মালিক সমিতি’ নামে একটি সংগঠন আত্মপ্রকাশ করে। তাঁরা ঈদের পর ২৮ মে বসে সিদ্ধান্ত নিয়ে ১ জুন একটি ‘জরুরি নোটিশ’ দিয়ে জানায়, শিক্ষার্থীদের এপ্রিল-মে-জুনের পুরো ভাড়াই দিতে হবে। যদি কোনো শিক্ষার্থীর পরিবার করোনার পরিস্থিতিতে অর্থনৈতিক সংকটে পড়েন, সে ক্ষেত্রে মেস মালিকরাই বিবেচনা করে সর্বোচ্চ মেস ভাড়ার ছাড় দেবেন। এই সিদ্ধান্তকে প্রত্যাখ্যান করে আসছে শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের নতুন সংগঠনের আহ্বায়ক রাজু আহমেদ প্রথম আলোকে বলেন, জেলা প্রশাসকের দপ্তর থেকে একটি বিশেষ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে এপ্রিল মাস থেকে ৪০ শতাংশ ভাড়া মওকুফে সিদ্ধান্ত আসে। কিন্তু এক সপ্তাহ না যেতেই একটি নতুন মেস মালিক সমিতি এসে জানায়, তারা পুরো ভাড়াই নেবে। এটা করোনাকালে শিক্ষার্থীদের জন্য সবচেয়ে জুলুমের সিদ্ধান্ত। তাই তাঁরাও একটি সংগঠন করেছেন। এখান থেকে মেসে থাকা শিক্ষার্থীদের সব সমস্যা বিষয়ে পাশে থাকবে তাঁরা।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন