বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রত্যক্ষদর্শী ও খাদেমুলের স্বজনেরা বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ি থেকে এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের মোটা অঙ্কের টাকা নিয়ে মোটরসাইকেলে করে গাংনী শহরে যাচ্ছিলেন খাদেমুল। এ সময় গাড়াডোব গ্রামের খোকসা এলাকায় পৌঁছালে ছিনতাইকারীরা তাঁর টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। টাকা ছিনিয়ে নিতে না পেরে তাঁকে পেছন দিক থেকে গুলি করে পালিয়ে যায় ছিনতাইকারীরা। তাঁর চিৎকার শুনে স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেন। তাঁকে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর পরামর্শ দেন চিকিৎসকেরা। সেখানে নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী রহমত মিয়া বলেন, ‘গাড়াডোব রাস্তা হয়ে আমঝুপি যাচ্ছিলাম। খোকসায় রাস্তার পাশে একটি আমবাগানে বাঁচাও বাঁচাও চিৎকার শুনে গিয়ে দেখি, একজন লোক পড়ে আছেন। স্থানীয়দের সহায়তায় তাঁকে উদ্ধার করে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়।’

খাদেমুল ইসলামের ছোট ভাই ঝন্টু বলেন, এভাবে দিনের বেলায় ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটবে, বড় ভাই বুঝতে পারেননি। অনেক সময় এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের টাকা জেলা শাখা ব্যাংকে জমা দিতে এভাবেই যাতায়াত করতেন। এর আগে কখনো দিনের বেলায় ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেনি। গাংনী থানায় হত্যা মামলা করা হবে।

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) সাজেদুল ইসলাম ছিনতাইকারীর গুলিতে একজনের মৃত্যুর খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন