default-image

মেহেরপুর সদরের হিজুলী গ্রামের বাসিন্দা নুর ইসলাম হত্যা মামলায় পাঁচজনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেছেন আদালত। আজ সোমবার দুপুরের দিকে মেহেরপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রিপতি কুমার বিশ্বাস এ রায় দেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন হিজুলী গ্রামের সাগর মিয়া, মোহাম্মদ হক, হামিদুল ইসলাম, সোনা মিয়া ও সদরের গোভিপুর গ্রামের আলফাজ উদ্দিন। সাজাপ্রাপ্ত সাগর মিয়া ও মোহাম্মদ হককে রায় ঘোষণার পর কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সাজাপ্রাপ্ত অপর তিন আসামি আলফাজ, হামিদুল ও সোনা মিয়া পলাতক।

জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে ২০১০ সালের ২০ মার্চ রাতে নুর ইসলামকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যান আসামিরা। তাঁকে পাশের একটি মাঠে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যা করা হয়।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে ২০১০ সালের ২০ মার্চ রাতে নুর ইসলামকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যান আসামিরা। তাঁকে পাশের একটি মাঠে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যা করা হয়। পরদিন সকালে এলাকার মানুষ খেতে কাজ করতে গিয়ে লাশ দেখে তাঁর পরিবার ও পুলিশকে খবর দেন। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে। ওই ঘটনায় নুর ইসলামের স্ত্রী সাকেলা খাতুন বাদী হয়ে মোট ১১ জনকে আসামি করে মেহেরপুর সদর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই কামাল তদন্ত শেষে আদালতে সাগর মিয়া, মোহাম্মদ হক, সোনা মিয়া, আলফাজ উদ্দিন ও হামিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। মামলায় মোট ১৪ জন সাক্ষী তাঁদের সাক্ষ্য প্রদান করেন।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে আইনজীবী ছিলেন অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি (এপিপি) কাজী শহীদুল হক এবং আসামিপক্ষে আইনজীবী ছিলেন আসাদুল আজম খোকন।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন