বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, প্রায় এক বছর ধরে শরীফদের বাড়ির সামনে ইব্রাহিম রাতে অটোরিকশা রাখতেন। ইব্রাহিমের স্কুলপড়ুয়া মেয়েকে শরীফ প্রায়ই উত্ত্যক্ত করতেন। এ নিয়ে শরীফের বিরুদ্ধে এলাকায় একাধিকবার সালিস বৈঠক হয়। তখন থেকে শরীফ ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। কয়েক দিন ধরে শরীফ বিভিন্নভাবে ইব্রাহিমকে হুমকি দিচ্ছিলেন। এমনকি বাড়ির সামনে অটোরিকশা রাখলে সেটি পুড়িয়ে দেওয়ার হুমকিও দেন শরীফ।

মো. ইব্রাহিম বলেন, গতকাল রাতে ওই বাড়ির সামনে তিনি অটোরিকশাটি রেখে যান। রাতের কোনো একসময় রিকশাটি খড়কুটো ও কাঠ দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়। মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় ক্ষিপ্ত হয়ে শরীফ তাঁর অটোরিকশা পুড়িয়ে দিয়েছেন বলে তাঁর অভিযোগ।

তবে মো. শরীফ বলেন, ‘অটোরিকশাটি কে পুড়িয়েছে, তা আমি জানি না। আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা হয়েছে। স্কুলপড়ুয়া মেয়েকে উত্ত্যক্তের অভিযোগও সঠিক নয়।’

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জসীম উদ্দিন বলেন, ‘লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখার জন্য একজন কর্মকর্তাকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। তদন্তে প্রমাণ পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন