বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানান, আজ শনিবার সকালে বৃদ্ধ ওবায়দুল হক মজুমদার তাঁর ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে সম্প্রতি বিয়ে হওয়া মেয়েকে দেখতে ফুলগাজী উপজেলার আনন্দপুর ইউনিয়নের ইসলাম গ্রামে যাচ্ছিলেন। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ফেনী-ছাগলনাইয়া আঞ্চলিক সড়কের চানপুর সেতু এলাকায় সড়ক পারাপারের সময় ফেনীমুখী একটি দ্রুতগামী ট্রাক তাঁকে ধাক্কা দেয়। এতে তিনি মারাত্মক আহত হন। স্থানীয় লোকজন মুমূর্ষু অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে ফেনী ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বেলা তিনটার দিকে তিনি মারা যান। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে মর্গে রাখা হয়েছে।

দুর্ঘটনার সময় বৃদ্ধের সঙ্গে থাকা ছেলে শহীদ উল্যা বলেন, ঈদের দিন শুক্রবার থেকেই তাঁর বাবা ওবায়দুল হক মজুমদার মেয়েকে দেখতে যাওয়ার জন্য উদ্‌গ্রীব হয়ে ওঠেন। তাই পরদিন সকালে বাবা-ছেলে একসঙ্গে বাড়ি থেকে রওনা হন। পথে ট্রাকের ধাক্কায় সব শেষ। তাঁর শেষ ইচ্ছা আর কখনো পূরণ হবে না।

ফেনী ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) মো. ইকবাল হোসেন ভূঁঞা জানান, ওই বৃদ্ধের প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছিল। তাঁকে ঢাকা মেডিকেল অথবা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার জন্য বলা হয়েছিল। ইতিমধ্যে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

ফেনী সদর মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ময়নুল হোসেন ট্রাকের ধাক্কায় এক বৃদ্ধের মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন