default-image

যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলায় দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই চালক নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন মোটরসাইকেলের তিন আরোহী। আজ শুক্রবার দুপুরে উপজেলার বল্লা গ্রামের বালিগাঁদা কবরস্থানের সামনে ঝিকরগাছা-বাঁকড়া আবুল হোসেন সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহত দুজন হলেন ঝিকরগাছা উপজেলার শিত্তরদাহ গ্রামের আসলাম আলীর ছেলে হোসেন আলী (২০) ও একই উপজেলার দিঘড়ী গ্রামের বিল্লাল হোসেনের ছেলে নয়ন হোসেন (১৯)। হোসেন আলী পেশায় রাজমিস্ত্রি ছিলেন। তিনি উপজেলার বায়শা গ্রামের মামার বাড়িতে থাকতেন।
নয়ন হোসেন ফুটবল খেলার রেফারি ছিলেন। তিনি উপজেলার সোনাকুড় গ্রামের মামার বাড়িতে বসবাস করতেন।
আহতেরা হলেন উপজেলার বায়শা গ্রামের কামরুল ইসলামের ছেলে আক্তারুল ইসলাম (১৩), শফিকুল ইসলামের ছেলে রাব্বি হোসেন (১৮) ও আজিম উদ্দিনের ছেলে নাইম হোসেন (১২)।

বিজ্ঞাপন

কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, শুক্রবার দুপুরে উপজেলা সদর থেকে আসা একটি মোটরসাইকেল ঝিকরগাছা-বাঁকড়া আবুল হোসেন সড়ক দিয়ে উপজেলার বাঁকড়ায় যাচ্ছিল। মোটরসাইকেল চালাচ্ছিলেন হোসেন আলী। এ সময় একই সড়ক দিয়ে বাঁকড়া থেকে একটি মোটরসাইকেল উপজেলা সদরের দিকে যাচ্ছিল। মোটরসাইকেলটি চালাচ্ছিলেন নয়ন হোসেন। বেলা ১টা ১৫ মিনিটের দিকে মোটরসাইকেল দুটি উপজেলার বল্লা গ্রামের বালিগাঁদা কবরস্থানের সামনে পৌঁছায়। এ সময় মোটরসাইকেল দুটির মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে দুই মোটরসাইকেলের চালক হোসেন আলী ও নয়ন হোসেন এবং মোটরসাইকেল আরোহী আক্তারুল ইসলাম, রাব্বি হোসেন ও নাইম হোসেন গুরুতর আহত হন। স্থানীয় লোকজন তাঁদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। এ সময় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক হোসেন আলী ও নয়ন হোসেনকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত আক্তারুল ইসলাম ও রাব্বি হোসেনকে যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে ঝিকরগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুর রাজ্জাক বলেন, ‘দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই মোটরসাইকেলের দুই চালক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন মোটরসাইকেলের তিন আরোহী। তাঁদের মধ্যে দুজনকে যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।’

মন্তব্য পড়ুন 0