default-image

মোটরসাইকেলটির নিবন্ধন প্লেটে নম্বর নেই। নিবন্ধন প্লেটের জায়গায় ইংরেজিতে বড় বর্ণে লেখা ‘প্রেস’। আবার মোটরসাইকেলের সামনেও ইংরেজিতে একই শব্দ লেখা। অথচ সেই মোটরসাইকেলে বহন করা হচ্ছিল ফেনসিডিল। পরে ৩০ বোতল ফেনসিডিলসহ মোটরসাইকেল আরোহী এক তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ রোববার বিকেল সাড়ে পাঁচটায় জয়পুরহাটের আক্কেলপুর-বদলগাছী সড়কের আক্কেলপুর পৌর শহরের বড় মসজিদ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেপ্তার ওই তরুণের নাম ধীরেন চন্দ্র দাস (২৫)। তিনি আক্কেলপুর পৌর শহরের পুরাতন বাজার এলাকার বাসিন্দা ও আক্কেলপুর উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি বিরেন চন্দ্র দাসের ছেলে। ধীরেন চন্দ্র স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের অন্যতম সদস্য বলে পুলিশ জানিয়েছে। তবে ধীরেন দাসের দাবি, তিনি একজন মাদক ব্যবসায়ীর চক্রান্তের শিকার হয়েছেন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, মোটরসাইকেলে করে বদলগাছীর দিক থেকে আক্কেলপুর শহরের দিকে আসছিলেন দুজন তরুণ। পৌর শহরের বড় মসজিদ এলাকায় পুলিশ দেখে চলন্ত মোটরসাইকেল থেকে নেমে এক তরুণ পালিয়ে যান। এতে সন্দেহ হলে দ্রুত চালকসহ মোটরসাইকেলটি আটক করে পুলিশ। এ সময় মোটরসাইকেলের সিটের ওপর প্লাস্টিকের বস্তায় থাকা ফেনসিডিল পাওয়া যায়। পরে ফেনসিডিলসহ ওই তরুণকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। মোটরসাইকেলটির পেছনে ও সামনে ‘প্রেস’ লেখা ছিল।

আক্কেলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) দায়িত্বে থাকা পরিদর্শক (তদন্ত) সেলিম মালিক বলেন, ‘প্রেস’ লেখা মোটরসাইকেলে করে ফেনসিডিল বহনের সময় ধীরেন চন্দ্র দাসকে ৩০ বোতল ফেনসিডিলসহ গ্রেপ্তার করা হয়। আর মোটরসাইকেল থেকে পালিয়ে যাওয়া ব্যক্তিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0