সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা গেছে, দলের অব্যাহতি পাওয়া স্বতন্ত্র বিদ্রোহী প্রার্থীরা হলেন খলিলপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সদস্য মো. আশরাফ আলী খান, কামালপুরে আওয়ামী লীগের সদস্য মো. আলাউর রহমান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা কমিটির সদস্য আপ্পান আলী এবং আওয়ামী লীগের সদস্য মো. সোহেল আহমদ, আপার কাগাবলা ইউনিয়নে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ইমন মোস্তফা ও আওয়ামী লীগের সদস্য মো. ফারুক আহমদ, আখাইলকুরা ইউনিয়নে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মো. এমদাদুর রহমান রেনু, একাটুনা ইউনিয়নে প্রবাসী ও আওয়ামী লীগের সদস্য মো. শাহ গিয়াস উদ্দিন, চাঁদনীঘাট ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সদস্য মো. আসলাম মিয়া, কনকপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সদস্য মো. মনিরুজ্জামান, আমতৈল ইউনিয়নে যুবলীগ জেলা কমিটির সহসভাপতি সুজিত চন্দ্র দাশ, নাজিরাবাদ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সাবেক নেতা সৈয়দ মোহিত আলী, মোস্তফাপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সদস্য মো. তাজুল ইসলাম, গিয়াসনগর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সদস্য মো. মোশারফ হোসেন ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জিলা মিয়া।

অব্যাহতির বিষয়টি নিশ্চিত করে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালিক তরফদার আজ বৃহস্পতিবার প্রথম আলোকে বলেন, কেন্দ্রের নির্দেশ মোতাবেক দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে ইউপি নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ায় তাঁদেরকে দল থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে তাঁদের স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের জন্য জেলা আওয়ামী লীগ ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের কাছে সুপারিশ করা হয়েছে। বহিষ্কারের বিষয়ে জেলা ও কেন্দ্র সিদ্ধান্ত নেবে।

২৬ ডিসেম্বর মৌলভীবাজার সদর উপজেলায় ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন