বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মেছুয়া বাজারের ব্যবসায়ী কার্তিক পাল বলেন, ‘ঈদের আগে থেকেই মেছুয়া বাজারে তেল নেই। বৃহস্পতিবার তেলের নতুন দাম নির্ধারণ করে দেওয়া হলেও এখনো আমরা তেল পাইনি। ডিলাররা জানিয়েছেন, সয়াবিন পেতে আরও কয়েক দিন সময় লাগবে।’

ময়মনসিংহ নগরের বিভিন্ন এলাকার চৌরঙ্গী মোড়, ফিরোজ লাইব্রেরি মোড়, আকুয়া মাদরাসা কোয়ার্টার, সানকিপাড়ায় খোঁজ নিয়ে জানা যায়, পাড়া-মহল্লার দোকানগুলোতেও বিক্রি হচ্ছে না। দোকানিদের দাবি, তাঁদের কাছে তেল নেই। চৌরঙ্গী মোড় এলাকার দোকানি রতন মিয়া বলেন, ঈদের আগে থেকেই সয়াবিন তেল পাওয়া যাচ্ছে না। তাই ক্রেতাদের চাহিদা থাকলেও তেল বিক্রি করতে পারছেন না তিনি। তবে নতুন দাম নির্ধারণ হওয়ার পর ডিলাররা দু–এক দিনের মধ্যে সয়াবিন তেল সরবরাহ করবেন বলে আশা করছেন তিনি।

তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন দোকানি বলেন, পাড়া-মহল্লার কোনো কোনো দোকানে গোপনে বেশি দামে বোতলজাত সয়াবিন বিক্রি হচ্ছে। ওই দোকানগুলোতে এক লিটার সয়াবিন ২২০ থেকে ২৫০ টাকা দাম রাখা হচ্ছে।

ময়মনসিংহ নগরীর বিভিন্ন এলাকা ছাড়াও শহরতলির শম্ভুগঞ্জ ও দাপুনিয়া বাজারে আজ সকালে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ওই বাজারগুলোতেও সয়াবিন তেল অপ্রতুল। নতুন দাম নির্ধারণ হওয়ার পরও সয়াবিনের সংকট কাটেনি। শম্ভুগঞ্জ বাজারের একাধিক ক্রেতার সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ঈদের আগে থেকেই এই সংকট চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন