default-image

যশোরের বেনাপোল বন্দর থানায় পাঁচ বছরের এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। ধর্ষণের অভিযোগে গতকাল রোববার রাতে শিশুটির বাবা বাদী হয়ে বেনাপোল বন্দর থানায় একটি মামলা করেছেন। এ ঘটনায় এক মাদ্রাসাশিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

অভিযুক্ত মাদ্রাসাশিক্ষকের নাম সালমান ফারাজী (২৩)। তিনি বেনাপোল বন্দর থানার ছোট আঁচড়া গ্রামের বাসিন্দা।

মামলার এজাহারে বাদী উল্লেখ করেছেন, তাঁর মেয়ে একটি মাদ্রাসার ছাত্রী। গতকাল সকালে সে মাদ্রাসায় যায়। এ সময় মাদ্রাসায় নতুন যোগদান করা শিক্ষক হাফেজ সালমান ফারাজী তাকে একটি কক্ষে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন। মেয়েটি বাড়িতে ফিরে পরিবারকে জানায়, নতুন হুজুর তার সঙ্গে খারাপ কাজ করেছেন।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গতকাল রাতে মামলার পর শিক্ষক সালমান ফারাজীকে গ্রেপ্তার করা হয়। শিশুটিকে যশোরের ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বেনাপোল বন্দর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রাসেল সরোয়ার বলেন, গতকাল রাতে সালমান ফারাজীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ সোমবার তাঁকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। যশোরের ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে শিশুটির ডাক্তারি পরীক্ষা হয়েছে। এ ছাড়া ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে ২২ ধারায় শিশুটির জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন