যুবকের অ্যাংলেট খুলে মিলল ৬০০ ইয়াবা বড়ি

৬০০ ইয়াবা বড়িসহ জাকির হোসেন নামে ওই যুবককে আটক করেছে পুলিশ। জুড়ী, মৌলভীবাজার, ১১ সেপ্টেম্বর
৬০০ ইয়াবা বড়িসহ জাকির হোসেন নামে ওই যুবককে আটক করেছে পুলিশ। জুড়ী, মৌলভীবাজার, ১১ সেপ্টেম্বরপ্রথম আলো
বিজ্ঞাপন

তথ্যদাতার (সোর্স) কাছ থেকে মাদক পরিবহনের তথ্য পেয়ে মোটরসাইকেল আরোহী যুবকের পথরোধ করে পুলিশ। এ সময় ওই যুবক কৌশলে সটকে পড়ার চেষ্টা করেন। একপর্যায়ে পুলিশ তল্লাশি চালিয়ে তাঁর পায়ে পরা অ্যাংলেটের (মোজা সদৃশ যা ফুটবল খেলার সময় যা পরা হয়) ভেতরে স্কচটেপে মোড়ানো দুটি প্যাকেট থেকে ৬০০ ইয়াবা জব্দ করে। এ সময় আটক করা হয় ওই যুবককে। শুক্রবার সন্ধ্যায় মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলার দক্ষিণ সাগরনাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ বলছে, জব্দ করা ইয়াবার মূল্য প্রায় দুই লাখ টাকা। আটক ওই যুবকের নাম জাকির হোসেন (২৮)। তাঁর বাড়ি উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী পূর্ব বটুলি গ্রামে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পুলিশ জানায়, জাকির মাদক নিয়ে মোটরসাইকেলে করে পূর্ব বটুলি থেকে পাশের সাগরনাল এলাকার দিকে যাচ্ছিলেন। শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে জুড়ী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল দক্ষিণ সাগরনাল এলাকায় তাঁকে আটকায়। এ সময় তাঁকে আটকানোর কারণ জানতে চান জাকির। তাঁর সঙ্গে কোনো মাদকদ্রব্য নেই দাবি করে একপর্যায়ে পালানোর চেষ্টা করেন। পরে তাঁর পায়ে পরা অ্যাংলেটের ভেতরে ইয়াবার দুটি প্যাকেট থেকে ৬০০ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। জব্দ করা হয় তাঁর ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটি। রাতেই পুলিশের পক্ষ থেকে জাকিরকে আসামি করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সঞ্জয় চক্রবর্তী বলেন, জাকির তাঁদের চোখ ফাঁকি দিয়ে কৌশলে পালিয়ে যেতে চেয়েছিলেন। সেটা সম্ভব হয়নি। তিনি দীর্ঘদিন ধরে মাদকের ব্যবসা করছেন। জব্দ করা ইয়াবার মূল্য ১ লাখ ৮০ হাজার টাকা (প্রতিটি ৩০০ টাকা হিসাবে)। জাকিরকে আজ শনিবার সকালে মৌলভীবাজারের আদালতে পাঠানোর কথা রয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন