default-image

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে স্ত্রীর করা যৌতুক মামলায় সৌদিপ্রবাসী স্বামী আমান উল্লাহকে ১ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত। অনাদায়ে আরও তিন মাসের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাউছার আলমের আদালত এ রায় দেন। তবে রায়ের সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন না।
দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আমান উল্লাহ জেলার সোনারগাঁও উপজেলার পশ্চিম বেহাকৈর গ্রামের হজরত আলীর ছেলে।
আদালতের বেঞ্চ সহকারী জাকির হোসেন জানান, যৌতুকের মামলায় আদালত প্রবাসী স্বামী আমান উল্লাহকে ১ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন। জরিমানার টাকা অনাদায়ে আরও তিন মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ১৫ জুলাই মামলার বাদীর সঙ্গে প্রবাসী আমান উল্লাহর বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর ভবন নির্মাণের কথা বলে ছয় লাখ টাকা যৌতুক নেন আমান। আরও পাঁচ লাখ টাকা যৌতুক না পেয়ে বিয়ের দুই মাস পর স্ত্রী জান্নাতুল শ্রাবণীকে মারধর করে বাড়ি থেকে বের করে দিয়ে গোপনে বিদেশ চলে যান। এ ঘটনায় স্ত্রী শ্রাবণী বাদী হয়ে মামলা করেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন