default-image

রংপুরে করোনার টিকা পৌঁছেছে। আজ রোববার সকালে টিকাবাহী পিকআপ ভ্যানটি জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ে পৌঁছায়। প্রথম ধাপে আসা টিকা দুই লাখ চার হাজার মানুষকে দেওয়া যাবে। জেলা সিভিল সার্জন হিরম্ব কুমার রায় প্রথম আলোকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জেলা সিভিল সার্জন হিরম্ব কুমার রায় বলেন, ঢাকা থেকে ফ্রিজার ভ্যানে পাঠানো করোনার এসব টিকা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের ভান্ডারকক্ষের ফ্রিজে সংরক্ষণ করা হয়েছে। আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে জেলায় ১৩টি বুথের মাধ্যমে টিকা দেওয়া হবে।

সিভিল সার্জন বলেন, রংপুরে প্রথম ধাপে উপজেলায় সাতটি এবং সিটি করপোরেশনের ছয়টি বুথের মাধ্যমে আগামী ৭ ফ্রেব্রুয়ারি থেকে টিকা প্রয়োগ শুরু হবে। জেলায় প্রথম ধাপে দুই লাখ চার হাজার ব্যক্তি এই টিকা পাবেন। সিটির ভেতরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং উপজেলাগুলোতে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে এসব টিকা দেওয়া হবে। পর্যায়ক্রমে আরও টিকা এলে তা নিয়মমাফিক দেওয়া হবে।


টিকা দেওয়ার কাজে নিয়োজিত স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে বলেও জানান সিভিল সার্জন হিরম্ব কুমার রায়। এ বিষয়ে তিনি বলেন, টিকা পেতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে তালিকাভুক্ত ব্যক্তিদের অনলাইনে বাধ্যতামূলক নিবন্ধন করতে হবে। রেজিস্ট্রেশন ছাড়া টিকা গ্রহণ করা যাবে না। স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ, মুক্তিযোদ্ধা ও প্রশাসনের কর্মকর্তা ও ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তিদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এসব টিকা দেওয়া হবে।


করোনার টিকার কার্টন হস্তান্তরের সময় ডেপুটি সিভিল সার্জন কানিজ সাবিহা, করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণ ও সংরক্ষণ কমিটির সদস্য মহানগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (সিটিএসবি) শরীফ আল রাজীব, জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) সৈয়দ মোহাম্মদ ফরহাদ, ওষুধ প্রশাসনের সহকারী পরিচালক তৌহিদুল ইসলাম, জেলা ইপিআই সুপারিনটেনডেন্ট (দায়িত্বপ্রাপ্ত) আলাউদ্দিন আল আজাদসহ স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন