বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ময়নাতদন্তের জন্য লাশ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে ওই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি।

ওই শিক্ষার্থী রংপুর মেডিকেল কলেজের ৪৩তম ব্যাচের। তিনি পাস না করায় পিছিয়ে পড়েছিলেন। তিনি চার মাস আগে বিয়েও করেছেন।

কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হোসেন আলী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, কলেজের পক্ষ থেকে পুলিশকে খবর দেওয়ার পর বিকেল ৫টার দিকে কলেজ ক্যাম্পাসে অবস্থিত পিন্নু ছাত্রাবাসের ৪৭ নম্বর কক্ষের দরজা ভেঙে ওই শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করা হয়। কক্ষের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ ছিল। লাশের শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন ছিল না। রাত আটটা পর্যন্ত ময়নাতদন্ত করা হয়নি। আজ না–ও হতে পারে বলে জানান তিনি।

রংপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ নূরুন্নবী লাইজু বলেন, ওই শিক্ষার্থী ৪৩তম ব্যাচের। তিনি পাস না করায় পিছিয়ে পড়েছেন। বর্তমানে ৪৫তম ব্যাচের পরীক্ষা চলছে। তাঁরও পরীক্ষা চলছিল। তিনি তাঁর কক্ষে একাই ছিলেন। বাড়ি নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার মাঝপাড়া গ্রামে। তিনি চার মাস আগে বিয়েও করেছেন। তবে মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন