বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও ওই দুই শিশুর পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, উপজেলার চরমার্গারেট গ্রামের ফোরকান বয়াতীর মেয়ে ফাতেমা সকাল ১০টায় বাড়ির উঠানে অন্য শিশুদের সঙ্গে খেলা করছিল। একপর্যায়ে সবার অজান্তে বাড়ির পাশের পুকুরে পড়ে ডুবে যায়। পরে ফাতেমাকে না দেখে পরিবারের লোকজন খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে পুকুরে ফাতেমার লাশ ভেসে উঠলে স্থানীয় লোকজন শিশুটিকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করেন।

অপর ঘটনাটি ঘটে ইউনিয়নের নয়ারচর গ্রামে। ওই গ্রামের মাহাবুব হাওলাদারের ছেলে রাফিল দুপুর ১২টায় বাড়ির আঙিনায় খেলার একপর্যায়ে বাড়ির পাশের পুকুরে পড়ে ডুবে যায়। প্রায় দেড় ঘণ্টার পর পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করেন স্বজনেরা।
চরমোন্তাজ পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের ইনচার্জ মোহাম্মাদ মিজান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর শুনে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছিল। শিশুদের লাশ উদ্ধার করে পারিবারিকভাবে দাফন করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন