বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আহত প্রার্থীর বাবা মুকিম বিশ্বাস বলেন, রাত সাড়ে ১১টার দিকে বিদ্রোহী প্রার্থী আহমদ হোসেনের সমর্থক রাসেল, ফারুক, ফরিদ, রোমানসহ ৮ থেকে ১০ জন তাঁদের বাড়ির উঠানে ঢুকে হামলা চালান। এ সময় বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে সোবহান ও রাশেদুজ্জামান দাঁড়িয়ে ছিলেন। বাড়ির লোকজনের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে হামলাকারীরা গুলি ছুড়ে পালিয়ে যান। খবর পেয়ে পুলিশ এসে তাঁদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

হামলার বর্ণনা দিয়ে তালাত মাহমুদ বলেন, গতকাল রাতে নির্বাচন নিয়ে ঘরোয়া বৈঠক শেষে তিনি প্রতিবেশী নয়ন শিকদারকে বাড়িতে এগিয়ে দিতে যান। সেখান থেকে ফেরার সময় তিনি লক্ষ্য করেন, ১০ থেকে ১২ জন তাঁর দিকে দৌড়ে আসছেন। এ সময় তিনি দৌড়ে বাড়ির উঠানে ঢুকে পড়েন। এরপরই হামলাকারীরা উঠানে ঢুকে গুলি করে।

তালাত মাহমুদ বলেন, ‘এ সময় আমার ডান চোখের ভ্রুতে গুলি লাগে। আমার চিৎকারে ঘর থেকে সবাই বেড়িয়ে আসলে হামলাকারীরা আমাকে হকিস্টিক দিয়ে আঘাত করে দুটি ফাঁকা গুলি করে পালিয়ে যায়।’

পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা তরুণ কুমার পাল বলেন, তালাত তাঁর ডান চোখে গুরুতর আঘাত পেয়েছেন। তবে সেটা গুলির আঘাত নয়। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তবে তালাত মাহমুদের দাবি তাঁর ডান ভ্রুতে গুলি লেখেছে। তিনি বলেন, ‘আমার চোখের ওপর তিনটি সেলাই লেগেছে। হয়তোবা গুলিবিদ্ধ হওয়ার বিষয়টি ডাক্তার বলতে মিস করেছে। আমার গুলি লেগেছে আমি জানি। আমাকে প্রতিবেশী রাসেল গুলি করেছে। আমি হাসপাতাল থেকে রিলিজ নিয়ে কিছুক্ষণ আগে বাড়িতে এসেছি। এবিষয়ে মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে।

অভিযোগ অস্বীকার করে আবদুস সোহবান বলেন, ‘তালাত আমার আপন ভাগনে। সে মেম্বার (ইউপি সদস্য) প্রার্থী। তার সঙ্গে ভোট চাওয়া নিয়ে আরেক মেম্বার প্রার্থীর সঙ্গে পাল্টাপাল্টি ধাওয়া হয়েছে। কিন্তু তিনি নৌকার হয়ে নির্বাচন করায় আমাদের ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। আমাদের বিরুদ্ধে করা অভিযোগটি পুরোপুরি মিথ্যা ও বানোয়াট।’

জানতে চাইলে পাংশা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার সুমন সাহা বলেন, হামলাকারীদের লাঠির আঘাতে একজন আহত হয়েছে। এখন পরিবেশ স্বাভাবিক রয়েছে। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে ওই এলাকায় পুলিশ টহল বাড়ানো হয়েছে। এ বিষয়ে লিখিতভাবে অভিযোগ পেলে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন