গত এক মাসে পুরো জেলায় ১ হাজার ২৬ জন ব্যক্তি ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে গত সাত দিনেই ৬০৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে রাজবাড়ী সদরে সর্বোচ্চ ৪৫৫ জন, পাংশায় ৪৭, কালুখালীতে ১৩, বালিয়াকান্দিতে ২৮ এবং গোয়ালন্দে ৬৩ জন।

আজ দুপুরে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, ডায়রিয়া ওয়ার্ডে ১২টি শয্যা থাকলেও সেখানে প্রায় ১৫০ জন রোগী ভর্তি আছেন। রোগীদের মধ্যে শিশু থেকে বৃদ্ধ—সবাই আছেন। তবে হাসপাতালে শয্যা না পেয়ে বাধ্য হয়ে রোগীরা হাসপাতালের বারান্দায় বিছানা পেতে শুয়ে আছেন। বারান্দার দুই পাশে রোগীদের বিছানার কারণে সেখানে পা ফেলার মতো জায়গা নেই।

সদর উপজেলার ধুঞ্চির বাসিন্দা বৃষ্টি আক্তার বলেন, গতকাল রাত থেকে ডায়রিয়া শুরু হয়। এরপর এক রাতের মধ্যেই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় সকালে এসে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন।

default-image

লক্ষ্মীকোলের বাসিন্দা রত্না আক্তার বলেন, তিনি দুই দিন ধরে হাসপাতালে। আক্রান্ত হওয়ার পর বাড়িতেই স্যালাইন খাচ্ছিলেন। কিন্তু তাতে কাজ হয়নি। এ কারণে তিনি হাসপাতালে চলে আসেন। তবে হাসপাতালের টয়লেটগুলোর ব্যবহারের অনুপযোগী বলে অভিযোগ জানান তিনি।

রোগীর চাপ সামাল দিতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের জ্যেষ্ঠ স্টাফ নার্স আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় ডায়রিয়ায় আক্রান্ত ৫০ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন। আগে থেকেও রোগী ভর্তি ছিল। এখন সবমিলিয়ে প্রায় ১৫০ জন রোগী চিকিৎসা সেবা নিচ্ছেন। এক সপ্তাহ ধরেই হঠাৎ করে হাসপাতালে রোগীর চাপ বেড়েছে।

রাজবাড়ীর সিভিল সার্জন মোহাম্মদ ইব্রাহিম বলেন, ইতিমধ্যে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ঢাকার বিভাগীয় পরিচালক বেলাল হোসেন, রোগনিয়ন্ত্রণ বিভাগের পরিচালক নাজমুল ইসলামসহ একটি ঊর্ধ্বতন দল সদর হাসপাতাল পরিদর্শন করেছেন। তাঁরা রোগী ও স্বজনদের সঙ্গে কথা বলেছেন। তরলজাতীয় খাবার খেতে বলা হয়েছে। পরিষ্কার পানি পান করতে বলেছেন।

এ ছাড়া ডায়রিয়ার ব্যাপারে সবাইকে সচেতন থাকতে পরামর্শ দিয়েছেন মোহাম্মদ ইব্রাহিম। তিনি বলেন, এক সপ্তাহের মধ্যে রাজবাড়ীতে প্রকোপ আকার ধারণ করেছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, পানি বা দূষিত খাবার থেকে এই রোগ ছড়িয়েছে। বিভিন্ন বয়সের মানুষ ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছেন। তাই সবাইকে পানি ফুটিয়ে পান করতে হবে। বাইরের খাবার খাওয়া থেকেও বিরত থাকতে হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন