এ সময় উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্কার্স পার্টির রাজশাহী জেলার সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল হক, নগর সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য এন্তাজুল হক, সাদরুল ইসলাম, আবুল কালাম আজাদ, আবদুর রাজ্জাক, আবদুল মতিন, মনিরুদ্দীন পান্না, মনিরুজ্জামান মনির, মহানগর সদস্য ও ৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মতিউর রহমান, শামীম ইমতিয়াজ, আলমগীর হোসেন, মহানগর ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি ওহিদুর রহমান প্রমুখ।

এদিকে খাপড়া ওয়ার্ডের শহীদদের স্মরণে রাজশাহীর বরেন্দ্র কলেজে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়েছে। আজ রোববার সকালে খাপড়া ওয়ার্ড শহীদ দিবস পালন কমিটি এর আয়োজন করে। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে রাজশাহী জেলা উদীচী ও খেলাঘর আসর বিপ্লবী গান ও কবিতা আবৃত্তি করে।

পরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান আলোচক ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. মর্ত্তুজা খালেদ। সভাপতিত্ব করেন ভাষাসৈনিক মোশাররফ হোসেন আখুঞ্জি। বক্তব্য দেন সিপিবির জেলা কমিটির সভাপতি এনামুল হক ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গ থেকে আসা ডা. মমতাজ সংঘমিতা।

উল্লেখ্য, নিম্নমানের খাবার ও বন্দীদের নির্যাতনের প্রতিবাদে অনশন ও আন্দোলন করায় ১৯৫০ সালের ২৪ এপ্রিল রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের খাপড়া ওয়ার্ডে গুলি চালায় তৎকালীন পুলিশ।

এতে নিহত হন ময়মনসিংহের সুখেন্দু ভট্টাচার্য, দিনাজপুরের বলরাম সিংহ, চাঁপাইনবাবগঞ্জের সুধীন ধর, কুষ্টিয়ার দেলোয়ার হোসেন ও হানিফ শেখ এবং খুলনার বিজন সেন ও আনোয়ার হোসেন। তাঁরা কমিউনিস্ট পার্টির সক্রিয় কর্মী ছিলেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন