রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলায় কবিরাজের বাড়ি থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় স্বপন রহমান (২২) নামে এক রোগীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি গত মঙ্গলবার ওই কবিরাজের বাড়িতে চিকিৎসা নিতে যান। গতকাল বুধবার বিকেলে উপজেলার হাটকানপাড়া এলাকার বাজুখলশী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্বপন নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার দাসগ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে। এ ঘটনার পর থেকে কবিরাজ নাসির উদ্দিনসহ তাঁর পরিবারের সদস্যরা পলাতক।

পুলিশ বলছে, তাঁরা জানতে পেরেছেন গত মঙ্গলবার দুর্গাপুর উপজেলার হাটকানপাড়ার বাজুখলশী গ্রামে নাসিরের বাড়িতে চিকিৎসা নিতে যান স্বপন। বুধবার বেলা তিনটার দিকে ওই বাড়ির একটি কক্ষে স্বপনকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। পরে ঘটনাটি স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান শমসের আলীকে জানানো হলে তিনি থানায় খবর দেন।

দুর্গাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খুরশিদা বানু বলেন, পুলিশ রাতে গিয়ে স্বপনের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তিনি আত্মহত্যা করেছেন। তবে ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0