বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন রাজশাহী নগরের বোয়ালিয়া মডেল থানাধীন কয়েরদাড়া বিলপাড়া গ্রামের মো. রবিউল শেখ (৪০)। তিনি রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ১৬ নম্বর ওয়ার্ড ইউনিটের জামায়াতের রোকন। অন্য ব্যক্তিরা হলেন দরগাপাড়ার মো. পারভেজ (২২) ও মতিহার থানার নতুন বুধপাড়া গ্রামের মো. হাবিব (২৭)। পুলিশ জানিয়েছে, তাঁরা দুজন শিবিরের সক্রিয় সদস্য।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার মো. গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানিয়েছেন, শুক্রবার ভোররাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ তথ্য পায় যে জামায়াতের নেতাসহ শিবিরের বিভিন্ন পর্যায়ের সদস্যরা একত্র হয়ে সন্ত্রাসী কার্যক্রম সংঘটনের জন্য মিটিং করছেন। এ খবরের ভিত্তিতে নগরের বোয়ালিয়া মডেল থানার কয়েরদাড়া গ্রামের রবিউল ইসলামের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। অভিযানের সময় সন্ত্রাসী কার্যক্রম সংঘটনের প্ররোচনা, ষড়যন্ত্র, জুম মিটিং করার সময় জামায়াতের রোকনসহ অন্য ব্যক্তিদের গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ১০ থেকে ১২ জন পালিয়ে যান।

মো. গোলাম রুহুল কুদ্দুস আরও জানিয়েছেন, ওই এলাকায় অভিযান চালানোর পর গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের কাছ থেকে ট্যাব, জামায়াত ও ছাত্রশিবিরের কার্যক্রমের রেকর্ডপত্র, জিহাদি বই, ব্যানার, ক্যাশ রেজিস্টার, দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রসহ অন্যান্য মালামাল জব্দ করা হয়।

নগরের বোয়ালিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারন চন্দ্র বর্মন বলেন, গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আগেও একাধিক মামলা ছিল। নতুন করে তাঁদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলা দেওয়া হয়েছে। তাঁদের শনিবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন