default-image

রাজশাহীতে মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে বাবাকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাঁকে এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড করা হয়েছে। আজ সোমবার দুপুরে রাজশাহীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মনসুর আলম এই রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তির বয়স ৫০ বছর।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ২০১৮ সালের ১৪ মে মা রান্নার কাজে ছাত্রাবাসে গেলে ১৪ বছরের কিশোরী মেয়েকে মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করেন বাবা। ঘটনাটি কাউকে জানালে তার মাকে গলা কেটে হত্যা করা হবে বলেও মেয়েকে হুমকি দেন তিনি। ওই বছরের ২২ নভেম্বর নলকূপে পানি আনতে গিয়ে পা পিছলে পড়ে মেয়েটির গর্ভপাত হয়। মেয়ের মা বাদী হয়ে ২০১৯ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি বাদী হয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে নগরের রাজপাড়া থানায় মামলা করেন। এরপর পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করে।

রায় ঘোষণার পর ট্রাইব্যুনালের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) রাশেদ উন নবী সাংবাদিকদের বলেন, এই মামলার আসামি ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। কিশোরী ২২ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে। ১১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য নেওয়া হয়েছে। এই মামলার সমর্থনে চিকিৎসা সনদ পাওয়া গেছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন