বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, আজিম উদ্দিন দ্বিতীয় বিয়ে করার পর জমিজমা ভাগাভাগি নিয়ে রাকিবের সঙ্গে বিরোধ চলে আসছিল। সোমবার সকালে বাবার পানের বরজ দখলে নিচ্ছিলেন রাকিব। এ সময় আজিম উদ্দিন বাধা দিলে রাকিবের সঙ্গে বাগ্‌বিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে ধারালো হাঁসুয়া দিয়ে বাবার বুকে কোপ দেন রাকিব। এতে প্রচুর রক্তক্ষরণে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।

মোহনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাক আহম্মেদ বলেন, নিহত ওই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তরে জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আজিম উদ্দিনের ভাই বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। ঘটনার পর থেকে রাকিব পলাতক আছেন। তাঁকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন